বাজারদর

বিদ্যুৎ বিল ইউনিট কত ২০২৪ | 2024 সালে বাংলাদেশে প্রতি ইউনিট বিদ্যুৎ বিল

2024 সালে বাংলাদেশে প্রতি ইউনিট বিদ্যুৎ বিল update on 21st February 2024 

বিদ্যুৎ বিল হল একটি বিদ্যুৎ সরবরাহকারীর দ্বারা তার গ্রাহকদের কাছে জারি করা একটি বিবৃতি যাতে বিদ্যুতের পরিমাণ এবং সেই বিদ্যুতের জন্য পরিশোধ করা পরিমাণের বিবরণ থাকে।

বিদ্যুৎ বিল ইউনিট কত
বিদ্যুৎ বিল ইউনিট কত

বিলে সাধারণত বর্তমান মিটার রিডিং, প্রতি ইউনিট বিদ্যুতের হার এবং অন্যান্য চার্জ যেমন ট্যাক্স, বিলম্বে পেমেন্ট ফি ইত্যাদির মতো তথ্য অন্তর্ভুক্ত থাকে।

whatapp channel

অবস্থান, বিদ্যুৎ পরিষেবার ধরন, ব্যবহারের সময় এবং গ্রাহকের ব্যবহারের ধরণ সহ বিভিন্ন কারণের উপর নির্ভর করে বিদ্যুতের দাম পরিবর্তিত হতে পারে।

আজ আমি বাংলাদেশে প্রতি ইউনিট মূল্যের পুরাতন এবং নতুন বিদ্যুৎ বিল সরবরাহ করব। দিন দিন সব পণ্যের দাম যেমন বাড়ছে, তেমনি বাড়ছে বিদ্যুৎ বিলও। সুতরাং, বাংলাদেশের বিদ্যুৎ বিল সম্পর্কে আপডেট হওয়া সমস্ত তথ্য জানতে আজকের আলোচনা শেষ পর্যন্ত অনুসরণ করুন।

বাংলাদেশে বিদ্যুৎ বিল 2024

বাংলাদেশে, বিদ্যুৎ বিল বাংলাদেশ পাওয়ার ডেভেলপমেন্ট বোর্ড (বিপিডিবি) বা বিতরণ কোম্পানি দ্বারা জারি করা হয়। বিলের পরিমাণ গণনা করা হয় বিদ্যুতের ইউনিট, সরকার কর্তৃক নির্ধারিত শুল্ক এবং অতিরিক্ত ফি বা করের উপর ভিত্তি করে।

বাংলাদেশের গ্রাহকরা অনলাইন সহ বিভিন্ন উপায়ে তাদের বিদ্যুতের বিল পরিশোধ করতে পারেন, মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে বা নির্ধারিত অর্থপ্রদান কেন্দ্রে। আজ আমরা বিস্তৃতভাবে জানবো বাংলাদেশের বিদ্যুৎ বিল এবং প্রতি ইউনিট কত টাকা পরিশোধ করা হয়। তাই তথ্য পেতে শেষ অবধি নিবন্ধটি সাবধানে অনুসরণ করুন।

বিদ্যুৎ বিলের নতুন মূল্য 2024

বিভিন্ন পণ্যের দাম বৃদ্ধির পাশাপাশি বাংলাদেশের বিদ্যুৎ বিলও বেড়েছে। বাংলাদেশ সরকারের নতুন প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী বিভিন্ন পর্যায়ে গ্রাহকদের খুচরা পর্যায়ে বিদ্যুৎ বিলের দাম বাড়ানো হয়েছে।

বাংলাদেশে শুধু খুচরা পর্যায়েই নয়, পাইকারি পর্যায়েও বিদ্যুতের দাম বাড়ানো হয়েছে; সেই অনুযায়ী, নতুন দাম 1 ফেব্রুয়ারি 2023 থেকে কার্যকর হবে৷

সেখানে হালনাগাদ বিদ্যুতের বিল দেওয়া হয়েছে, যা চলমান বছরে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় এবং 1 ফেব্রুয়ারি 2023-এ বিধিতে বাধ্য করা হয়। এখন আসুন বাংলাদেশে বিদ্যুৎ বিল সংক্রান্ত বাংলাদেশ সরকারের সিদ্ধান্ত সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাক।

এবার আসি মূল কথায়। সাধারণ-স্তরের গ্রাহকদের জন্য 3.94 টাকা থেকে গড়ে 5% বেড়ে 4.14 টাকা প্রতি ইউনিট (প্রতি কিলোওয়াট ঘন্টা)। পাইকারি পর্যায়ে প্রতি ইউনিট 8.06% বৃদ্ধি করে 6.20 টাকা থেকে 6.70 টাকা করা হয়েছে।

এর আগে, সরকার 13 জানুয়ারী, 2023 থেকে খুচরা বিদ্যুতের দাম 5% বাড়িয়েছিল। সেই সময়ে, সমস্ত গ্রাহকের গড় দাম 7.13 টাকা থেকে 7.49 টাকা পর্যন্ত বৃদ্ধি পেয়েছিল।

গৃহস্থালি ছাড়াও কৃষি সেচ, শিল্প ও বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানেও দাম বেড়েছে। নতুন দাম অনুযায়ী, প্রতি ইউনিট কৃষিতে ১৬ পয়সা বেড়েছে। আগে কৃষি সেচের জন্য এক ইউনিট বিদ্যুতের দাম ছিল ৪ টাকা।

এখন তা হয়েছে 4.19 টাকা। যদিও 2017 সালের আগে সেচের দাম বাড়ানো হয়নি, 2017 সালে সর্বশেষ মূল্য বৃদ্ধির সময় বিদ্যুতের দাম প্রতি ইউনিট 3.82 পয়সা থেকে বেড়ে 4 টাকা হয়েছে।

12ই জানুয়ারী 2023-এ বিদ্যুতের দাম বেড়েছে। ক্ষুদ্র শিল্পের জন্য নতুন মূল্য 8.53 টাকা; অফ-পিক 6.80 টাকা এবং পিক আওয়ার 10.24 টাকা; নতুন মূল্য ইউনিট প্রতি 12 টাকা, ধর্মীয় শিক্ষা ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান 6.2 টাকা, রাস্তার বাতি 7.70 টাকা, বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান ফ্ল্যাট ইউনিট 9.27 টাকা এবং পিকে 12.34 টাকা।

তাই বলা যেতে পারে সব ধরনের বিদ্যুৎ সেবা ইউনিট বাড়ানো হয়েছে। আমরা বিদ্যুৎ বোর্ড থেকে সঠিক তথ্য সংগ্রহ করে এখানে উপস্থাপন করার চেষ্টা করেছি। বুঝতে অসুবিধা হলে কমেন্ট বক্সের মাধ্যমে আমাদের জানান।

তাই এটি বর্তমান বিদ্যুৎ বিলের মূল্য সরকারি বিদ্যুৎ কমিশনের প্রতিবেদনে। দেশটির রাষ্ট্র অনুযায়ী সরকার যেকোনো সময় যেকোনো সিদ্ধান্ত নিতে পারে। তাই নিয়মিত বিদ্যুৎ বিল আপডেট পেতে আমাদের সাথেই থাকুন। ধন্যবাদ.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button